lesbian lover arrested for throwing acid on her partner in up | প্রত্যাখান! জ্বালায় পার্টনারের গায়ে অ্যাসিড সমপ্রেমী তরুণীর

0
19


এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: ১৭ বছরের কিশোরীর শরীরে অ্যাসিড ছোড়ার অভিযোগে রবিবার গ্রেপ্তার করা হল তার ১৯ বছর বয়সী প্রেমিকাকে। শরীরে গভীর ক্ষত নিয়ে আপাতত হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে আক্রান্ত কিশোরী।

পুলিশ জানিয়েছে, গত শুক্রবার উত্তরপ্রদেশের ফিরোজাবাদ জেলার কারবালা কলোনির বাড়িতে আক্রান্ত হয় ওই কিশোরী। দুপুর ২-৩০ মিনিট নাগাদ ছাদে ঘুমন্ত অবস্থায় তার শরীরে অ্যাসিড ছুড়ে মারা হয়। আক্রান্ত কিশোরীর বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে তার প্রাক্তন পুরুষ সহপাঠীকে (১৮) গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩২৬ ও ৪৫২ নম্বর ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়।

পরে বিস্তারিত অনুসন্ধানের ফলে পুলিশ জানতে পারে, মেয়েটির শরীরে অ্যাসিড ছুড়েছিল তার প্রাক্তন সমপ্রেমী প্রেমিকা তথা ওই বাড়ির মালিকের ১৯ বছর বয়সী মেয়ে। জেরায় সে কবুল করে, কিছু দিন আগে ঘনিষ্ঠ সম্পর্কে ইতি টানা এবং কথা বন্ধ করে দেওয়ার কারণে কিশোরীর উপরে সে ক্ষুব্ধ হয়েছিল।

ফিরোজাবাদের পুলিশ সুপারিন্টেনডেন্ট রাজেশ কুমার সিং জানিয়েছেন, ‘দুই মাস আগে প্রেমিকার সঙ্গে সম্পর্কে ইতি টানে নিগৃহীতা। তাকে নানা ভাবে রাজি করানোর চষ্টা করে ব্যর্থ হওয়ার পরে প্রেমিকা বাড়িওয়ালার মেয়ে প্রতিহিংসা নেওয়ার ফন্দি আঁটে। গোয়েন্দাদের চোখে ধুলো দেওয়ার চেষ্টায় সে নিজের হাতেও অ্যাসিড ঢালে এবং কিশোরীর প্রাক্তন সহপাঠীকে ফাঁসানোর চেষ্টা করে।’

দক্ষিণ পুলিশ থানার এসএইচও লোকেন্দর সিং বলেন, ‘বহু দিন ধরেই কিশোরী এবং তার সহপাঠী কিশোর পরস্পরকে চিনত। অতীতে মেয়েটির বাবা অভিযোগ করেছিলেন যে, জোর করে ওই কিশোর তাঁর মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ার চেষ্টা করছে। অভিযোগ, এই কারণে কিশোরীকে রীতিমতো শাসিয়েছিল তার সহপাঠী কিশোর।’

তদন্তে নতুন মোড় আসার পরে তরুণীর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩২৬ নম্বর ধারায় (বিপজ্জনক অস্ত্রের সাহায্যে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত আঘাত হানা) এবং কিশোরের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৫৪ ডি (পিছু নেওয়া) ও ৫০৬ (অপরাধ সংগঠনের ইঙ্গিত) ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাদের দু’জনকেই আপাতত জেলে রাখা হয়েছে।





Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here