bharat bandh:opposition calls for bharat bandh today: but no effect in west bengal | Bharat Bandh: ভারত বন্‌ধে সচল রাজ্য, দিল্লিতে প্রতিবাদে সনিয়া-রাহুল-মনমোহন

0
14


এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিরোধীদের ডাকা ভারত বন্‌ধে বড় একটা প্রভাব পড়ল না এ রাজ্যে। কয়েকটি জায়গায় রেল অবরোধ ও পথ অবরোধের চেষ্টা হলেও মোটের উপর স্বাভাবিক রয়েছে জনজীবন। শহর ও বিভিন্ন জেলায় মিছিল বের করেন বন্‌ধ সমর্থকরা। দিল্লিতে মিছিল করেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। প্রতিবাদে সামিল সোনিয়া গান্ধী ও মনমোহন সিং-ও।

বন্‌ধের সমর্থনে সোমবার সকালে রাজঘাট থেকে রামলীলা ময়দান পর্যন্ত মিছিল করে কংগ্রেস। রাজ্য কংগ্রেসের নেতৃত্বে সর্বদলীয় ধরনায় অংশ নেন শরদ পাওয়ার, শরদ যাদব, সুখেন্দু শেখর রায়, তারিক আনোয়ার ও জয়ন্ত চৌধুরীরা।

মাইসুরু, বিজয়ওয়াড়া-সহ বিভিন্ন জায়গায় বন্‌ধের মিশ্র প্রভাব পড়লেও, মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু, পশ্চিমবঙ্গ-সহ বিভিন্ন রাজ্যে বন্‌ধের বিশেষ প্রভাব পড়েনি।

সকালে যাদবপুর এইটবি বাসস্ট্যান্ড থেকে মিছিল বের করে সিপিএম। নেতৃত্বে ছিলেন সিপিএম বিধায়ক সুজন চক্রবর্তী।

যাদবপুরে বামেদের মিছিল। ছবি: শুভ্রজিত্‍‌ চন্দ্র।

সকাল থেকেই শহর ও জেলাগুলির বিভিন্ন রাস্তায় যানচলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। অন্যান্য দিনের মতোই স্কুলে যেতে দেখা গিয়েছে কচিকাচাদের। তবে রাস্তাঘাট অন্যান্য দিনের তুলনায় কিছুটা ফাঁকা ছিল।

স্কুলে কচিকাচারা। ছবি: কৌশিক রায়।

হাওড়ার শানপুরে বাস ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে বন্‌ধ সমর্থকদের বিরুদ্ধে। শিয়ালদহ দক্ষিণ শাখাতে ওভারহেডের তারে কলাপাতা ফেলে ট্রেন অবরোধ করা হয়। সে জন্য বারুইপুর-লক্ষ্মীকান্তপুর শাখায় কিছুটা বিঘ্নিত হয় রেল চলাচল। তবে শিয়ালদহ মেন লাইন, হাওড়া, আসানসোল ও মালদা ডিভিশনে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

শিলিগুড়িতে বন্‌ধের আংশিক প্রভাব পড়েছে। দোকানপাট বন্ধ। অটো ও সরকারি বাস চলছে।

শিলিগুড়িতে বামেদের মিছিল।

কোচবিহারে বনধ সমর্থনকারীদের দেখা নেই বললেই চলে। যান চলাচল স্বাভাবিক রাখতে পথে নেমেছে তৃণমূল কংগ্রেস। উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ ড্রাইভার্স আ্যান্ড তৃণমূল শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়ন কোচবিহারের ডিপোর সামনে বিক্ষোভ দেখায়। বনধের সকালে যাতে যাত্রীদের যানবাহনের অভাবে কোনও সমস্যায় পড়তে না হয়, তাই নিজে ডিপোতে চলে আসেন উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণের চেয়ারম্যান মিহির গোস্বামী। তিনি জানান, যাতে কেউ দুর্ভোগে না পড়েন, তাই পর্যাপ্ত বাসের ব্যবস্থা আছে।

বনধে পশ্চিম মেদিনীপুরে তেমন কোনও প্রভাব পড়েনি। দোকানপাট খোলা। তবে বাস চলছে কম।

পূর্ব মেদিনীপুরে সকাল থেকে হাটবাজার খোলা থাকলেও বাস চলাচল করছে। সরকারি বাস চলাচল থাকলেও বেসরকারি বাসের সংখ্যা কিছুটা কম। হলদিয়া, দিঘা স্বাভাবিক। তমলুকের মানিকতলাতে সকাল থেকে পথ অবরোধ করে এসইউসি।

মোটের ওপর বীরভূমের সিউড়িতে বন্ধের প্রভাব সে ভাবে পড়েনি। সমস্ত সরকারি বাস চললেও, বেশকিছু বেসরকারি চলছে না।

বন্‌ধে ভালোই সাড়া পড়েছে মালদহে। দোকানপাট এখনও খোলেনি, রাস্তায় সরকারি বাস চলছে। বেসরকারি বাসও হাতে গোনা।

রথবাড়ি মোড়।

কৃষ্ণনগরে মাঝে মাঝে দু-একটি করে বেসরকারি বাস চললেও, বিভিন্ন রুটে সিংহভাগ বেসরকারি বাস পথে নামেনি। তবে সরকারি বাস চলছে। পলাশীতে মিনিট দশেক ট্রেন অবরোধ করা হয়।





Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here